লিভার ক্যান্সারে আক্রান্ত মোঃ আনিক মিয়ার বাচাঁর আকূতি

1
199
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:  সুনামগঞ্জ জেলার ছাতক উপজেলার বড়কাপন বানায়ত গ্রামের এক দরিদ্র পরিবারের সন্তান মোঃ আনিক মিয়া। মোঃ আনিক মিয়া পূর্বপাগলা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৮ সালে এস এস সি পরীক্ষায় পাশ করে সুনামগঞ্জ সরকারি কলেজে ভর্তি হয় এবং সেখান থেকে ২০১০ সালে এইচ এস সি পরীক্ষায় পাশ করে স্থানীয় গোবিন্দগঞ্জ আঃ হক ডিগ্রি কলেজে ডিগ্রি তে ভর্তি হয়ে ৩য় বর্ষতে অধ্যায়নকালেই থেমে যেতে থাকে তার জীবন ঘড়ি। দেখা দেয় দুরারোগ্য লিভার ক্যান্সার, ইতিমধ্যে ইহকাল ত্যাগ করেন তার জন্মদাত্রী মাতা। স্ত্রী, ও চার সন্তানদের নিয়ে মানসিক বির্পযয়ে পরে যায় আনিক মিয়া।। বাড়তে থাকে তার দূরারোগ্যের মানসিক প্রহার। এমতাবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল এ ভর্তি হয় । এতক্ষনে তার শারীরিকঅবস্থা খুবই জটিল আকার ধারণ করে।  সেখানের কর্তব্যরত ডাক্তার মুরসালীন আহমেদ তার পরীক্ষা নীরিক্ষা করে তাকে ঢাকা শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি  এবং ০৭ টি কেমো থেরাপি নেওয়ার পরামর্শ দেন। ঢাকা শেখ মুজিব মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমকর্মিদের আর্থিক সহযোগীতা আর নিজের স্ত্রী সন্তানদের মাথা গোজার শেষ অবদানটুকু জমি বিক্রি করে ০৬ টি কেমো থেরাপি নিতে সম্পন্ন হয় এবং ধীরে ধীরে সুস্থ্যতার উন্নতি হয় । গত ০৫/০৮/২০১৯ তারিখে শেষ থেরাপি নিলেই তার মরনব্যাধি লিভার ক্যান্সার থেকে বাচাঁর অনুপ্রেরনা পাবেন কিন্তু বাকী একটা থেরাপি নিতে তার আর কোন আর্থিক উৎস হয়নি। কালক্ষ্যাপনে তার অবস্থা এখন আরো অবনতির দিকে যাচ্ছে। আনিক মিয়া জানান, আমার শেষ সহায় সম্বল শেষ করে আমার ০৬ টি ক্যামো থেরাপি নিয়েছি এখন আর্থিক অভাবে কারনে বাকি থেরাপি নিতে পারছিনা। আমার শেষ বরসা এখন সহযোগীতা, আমি সমাজের সকলেরর ঐকান্তিক সহযোগীতা চাই। আমি বাচঁতে চাই,

সোনালী ব্যাংক লিঃ ছাতক শাখা: ৫৯০২২০১০২৬৪৭৩ , মোবাইল নাম্বার  01785874550 ও পারসোনাল বিকাশ, ডাচবাংলা রকেট একাউন্ট, 017858745504

 

1 মন্তব্য

  1. Wow that was odd. I just wrote an really long comment but after I clicked submit my comment didn’t appear.
    Grrrr… well I’m not writing all that over again. Anyway, just wanted to say excellent blog!

    Here is my page :: Buy CBD

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে