বন্যা কবলিত ১০০ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন হিরো আলম

0
49

বন্যা কবলিত ১০০ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন হিরো আলম

সারিয়াকান্দি বিভিন্ন স্থানে এক হাজার বানভাসীদের মাঝে শাড়ী ও লুঙ্গিসহ বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ করেছেন জনপ্রিয় অভিনেতা হিরো আলম।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সকালে বন্যা কবলিত সারিয়াকান্দি বিভিন্ন এলাকায় বন্যা কবলিত মানুষের মাঝে, অনন্ত জলিলের ৫০০০০ হাজার টাকা সহ নিজ ব্যক্তিগত উদ্যোগে শাড়ী, লুঙ্গিসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করেন।

প্রসঙ্গত, হিরো আলমকে অভিনয়ে রাখার ব্যাপারে যে চুক্তি হয়েছিল তা আকস্মিক ঘোষণার মাধ্যমে বাদ দেন অনন্ত জলিল। চুক্তির সময় প্রাথমিক ৫০ হাজার টাকা দিয়েছিলেন সেটি ফেরতও নেননি। তবে হিরো আলমও তা নিজের কাছে রাখলেন না। বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দিলেন সে টাকা। এই ৫০ টাকার সঙ্গে সমপরিমাণ টাকা যোগ করে বগুড়ার যমুনা তীরবর্তী সারিয়াকান্দি উপজেলার বন্যার্তদের মধ্যে বিলিয়ে দিচ্ছেন হিরো আলম।

এ প্রসঙ্গে হিরো আলম বলেন, অনন্ত জলিল আমাকে চলচ্চিত্র থেকে বাদ দিয়েছেন। তবে তিনি আমাকে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সময় ৫০ হাজার টাকা দিয়েছিলেন। বাদ দেওয়ার পর সেই টাকা আমি ফেরত দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু উনি নেননি। বিভিন্নভাবে টাকাটা দেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ার পর ভাবলাম, বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দিই।

হিরো আলম বলেন, ৫০ হাজার টাকার সঙ্গে আরো ৫০ হাজার টাকা যোগ করে এক লাখ টাকার একটা ফান্ড তৈরি করি। ৩০০ টাকার একটি লুঙ্গি ও ৭০০ টাকার একটি শাড়ি ও ৩০০ টাকার খাবার-মোট এক হাজার টাকা মাথাপিছু ১০০ পরিবারকে দিচ্ছি। বন্যায় অনেকেই কষ্ট পাচ্ছে, ভাবলাম সামান্য চেষ্টা করি। যার জন্য এই পরিকল্পনাই করলাম। সাধ্য হলে আরো সহায়তা করব।

অনন্ত জলিলের ছবিতে অভিনয় করছেন হিরো আলম। বিষয়টি বেশ জোরালোভাবেই ঘোষণা দিয়েছিলেন খোঁজ দ্য সার্চ চলচ্চিত্রের এই অভিনেতা। আর এ জন্য হিরো আলম ওরফে আশরাফুল আলমকে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে চুক্তি করিয়েছিলেন অনন্ত জলিল। কিন্তু অনন্ত জলিলের সেই ছবিতে আকস্মিক ঘোষণার মাধ্যমে হিরো আলমকে বাদ দিয়ে দেওয়া হয়।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে