করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ৩০ জেলা, শনিবার থেকে লকডাউন পুরো দেশ (ভিডিওসহ)

0
4581
করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ৩০ জেলা, শনিবার থেকে লকডাউন পুরো দেশ
ফাইল ছবি

*করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে ৩০ জেলা, শনিবার থেকে লকডাউন পুরো দেশ

বিজ্ঞপ্তিতে শুনতে সংবাদ এর নিচে ভিডিও দেওয়া আছে

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

বাংলাদেশের ৩০টি জেলা করোনাভাইরাস সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে এই কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সোমবার (৩০ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক সামাজিক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এই ৩০ জেলার মধ্যে রয়েছে ঢাকা, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, মুন্সীগঞ্জ, মাদারীপুর, শরীয়তপুর, ফেনী, চাঁদপুর, নীলফামারী, সিলেট, টাঙ্গাইল, রাজশাহী ও নওগাঁ।
অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এমআইএস শাখায় ২৪ মার্চ পর্যন্ত আসা তথ্য বিশ্লেষণ করে এসব জেলাকে ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ হিসেবে এরইমধ্যে চিহ্নিত করা হয়েছে।

উচ্চ ঝুঁকির এসব জেলায় সংক্রমণ প্রতিরোধে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, জেলা পর্যায়ে করোনা নিয়ন্ত্রণ একাধিক কমিটি রয়েছে। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলোতে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে, সেটা সেই কমিটি ঠিক করবে আর অধিদপ্তর বিষয়টি মনিটর করবে। এবং সার্বক্ষণিক তত্ত্বাবধান করবেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম বলেছেন, দেশের ৩০টি জেলায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। সর্বত্র মানুষে মানুষে করোনার সংক্রমণ দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। দেশের শতভাগ মানুষ মাস্ক পরাসহ প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্যবিধি না মেনে চললে এটা নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। নিয়ম-নীতির তোয়াক্কা না করে যদি জনসাধারণ চলাফেরা করে তাহলে দেশের পরিস্থিতি খুব খারাপ এর মধ্যে পড়ে যাবে তাই আমাদের করণীয় দেশের স্বার্থে সকলকে অবগত করার জন্য এবং প্রয়োজনীয় সকল সরঞ্জাম প্রস্তুতি কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে সেবা দেওয়া।
উল্লেখ্য, গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ে। গত ৩০ নভেম্বরের পর ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি পর্যন্ত সংক্রমণ ধারাবাহিকভাবে কমতে থাকে। কিন্তু মার্চের শুরু থেকে দৈনিক শনাক্ত রোগী, মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমাগত বাড়ছে। সোমবার এক দিনে পাঁচ হাজার ১৮১ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে, যা মহামারি শুরুর পর সর্বোচ্চ।

করণা পরিস্থিতি বর্তমান সময়ের প্রেক্ষিতে অবস্থা অপরিবর্তিত থাকলে আগামী শনিবার থেকে প্রদেশ লকডাউনের ঘোষণা দেয়া হবে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে।

করণা পরিস্থিতি বিজ্ঞপ্তিটি শুনতে লাল চিহ্নিত ক্লিক বাটন এ ক্লিক করুন

ত্রিমুখী সংঘর্ষে একই পরিবারের ১৭ জন নিহত সিসিটিভি ফুটেজ সম্পূর্ণ ভিডিও প্রকাশ হানিফ পরিবহন

দুর্ঘটনা কবলিত সিসিটিভি ফুটেজ সম্পূর্ণ ভিডিও সংবাদ এর নিচে দেওয়া আছে

‘হানিফ পরিবহন রং সাইডে গিয়ে মাইক্রোবাসটিকে ধাক্কা দিয়েছে সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আন্দাজ করা গেছে।
রাজশাহীতে বাস, মাইক্রোবাস ও সিএনজি অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষে নারী ও শিশুসহ ১৭ জন প্রাণ হারিয়েছে । পুলিশ জানিয়েছে, বেপরোয়া গতির হানিফ পরিবহন রং সাইডে গিয়ে যাত্রাবাহী মাইক্রোবাসটিতে মুহূর্তের মধ্যেই ধাক্কা দেয়। এতে মাইক্রোবাসটি দুমড়েমুচড়ে অন্তত ২০ গজ দূরে রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে থাকা একটি লেগুনার সঙ্গে নিয়ে ধাক্কা লাগলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে থাকে।

সড়কে থাকা সিসিটিভি ফুটেজ দেখে শুক্রবার (২৭ মার্চ) রাতে এ তথ্য  রাজশাহী নগর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, সিসিটিভি ফুটেজে দেখেছি, হানিফ পরিবহনের বাসটি বেপরোয়া গতিতে আসতেছিল। মাইক্রোটিকে সামনে থেকে ধাক্কা দিয়ে অন্তত ২০ গজ দূরে ঠেলে নিয়ে একটি লেগুনার সঙ্গে ধাক্কা লাগিয়ে অপর প্রান্তে চলে যায়। মুহূর্তেই মাইক্রোবাসের পেছনে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে এতগুলো মানুষের প্রাণ মুহূর্তেই পুড়ে কয়লা হয়ে যায়। সিলিন্ডার বিস্ম্ফোরণ না হলে নিহতের সংখ্যা এত বেশি না হতে পারত। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সিলিন্ডার বিস্ফোরণের কারণেই এত মানুষ মারা গেল। হানিফ পরিবহন বেপরোয়াভাবে গাড়ি না চালালে এ দুর্ঘটনা এড়ানো যেত। হানিফ পরিবহন রং সাইডে গিয়ে মাইক্রোবাসটিকে ধাক্কা দিয়েছে বল এই দুর্ঘটনাটি ঘটে।

এর আগে, রাজশাহীর কাটাখালীতে রাজশাহীতে বাস, মাইক্রোবাস ও সিএনজি অটোরিকশার ত্রিমুখী সংঘর্ষে নারী ও শিশুসহ ১৭ জন নিহত হয়েছে। শুক্রবার (২৬ মার্চ) দুপুরে নগরীর কাঁটাখালিতে এ ঘটনার সূত্রপাত ঘটে।
জানা গেছে, মাইক্রোবাসের ১৩ যাত্রী চারটি পরিবারের সদস্য। নিহতদের মধ্যে চারজন নারী ও ২ শিশু রয়েছে। আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। গুরুতর অবস্থায় তাদের তাৎক্ষণিক রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, দুপুরে হানিফ পরিবহনের যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা যাচ্ছিলো। পথে কাটাখালি এলাকায় পৌঁছালে, বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মাইক্রোবাস ও সিএনজি চালিত ইমার সঙ্গে ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়। এ সময় মাইক্রোবাসের গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়। আগুনে মাইক্রোবাসটি সম্পূর্ণ পুড়ে যায়। এতে মাইক্রোবাসে থাকা দুই শিশু ও চার নারীসহ ১১ যাত্রী ঘটনাস্থলেই মারা যান। আহত হন আরও বেশ কয়েকজন। খবর পেয়ে আহতদের উদ্ধার করে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা।
আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

ভিডিওটি লাল চিহ্নিত ক্লিক বাটনে ক্লিক করুন

সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মুসল্লিদের ব্রেকিং নিউজ বায়তুল মোকাররমে পুলিশের সাথে মুসল্লিদের সরাসরি সংঘর্ষ (ভিডিও সহ)

ঢাকা: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ আগমনে বিরোধিতা করে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের বিক্ষোভ মিছিলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় অর্ধশতাধিক পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এছাড়াও মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হয়েছেন ৪০ থেকে ৪৫ জন নেতাকর্মী

পুলিশের সাথে মুসল্লিদের সরাসরি সংঘর্ষ ভিডিওটি পুরো সংবাদের নিচে দেওয়া আছে

মোদির আগমনে বিশ্বের সাত টি শক্তিশালী দেশ এর স্পেশাল ফোর্স নিরাপত্তার কাজে অংশগ্রহণ করছে বিস্তারিত জানুন

মহা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনে সাতক্ষীরায় ঘিরে নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা হয়েছে গোটা সাতক্ষীরা। আগামী ২৭ মার্চ তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের দেবীর ৫১ শক্তিপীঠের মধ্যে অন্যতম পবিত্র একটি শক্তিপীঠ হিসেবে পরিচিত সাতক্ষীরার সুন্দরবন সংলগ্ন শ্যামনগরের ঈশ্বরীপুর যশোরেশ্বরী কালীমন্দির স্থান পরিদর্শন করবেন।

নরেন্দ্র মোদির আগমনী এরইমধ্যে বিশ্বের শক্তিশালী সাতটি দেশ আমেরিকা, ইতালি, উত্তর কোরিয়া, জাপান, এর স্পেশাল ফোর্স সাথে থাকবে বাংলাদেশের প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করা হয়েছে। জোরদার করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সব রকম প্রস্তুতি টহল।

ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আগমনে মতুয়া সম্প্রদায়ের তীর্থ স্থান হিসেবে পরিচিত ঈশ্বরীপুর কালীমন্দির সংলগ্ন হিন্দু ও মতুয়া সম্প্রদায়ে চলছে উৎসবের আনন্দধারা।

সাতক্ষীরা-৪ আসনের সংসদ সদস্য এস এম জগলুল হায়দার ও জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল জানিয়েছেন, বাঙ্গালি জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শুক্রবার (২৬ মার্চ) বাংলাদেশ সফরে আসবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পরদিন ২৭ মার্চ তিনি হেলিকপ্টার যোগে সাতক্ষীরার শ্যামনগরের রাজা প্রতাপাদিত্যের রাজধানী হিসেবে খ্যাত ধুমঘাট এলাকার ঈশ্বরীপুর যশোরেশ্বরী কালীমন্দির পরিদর্শন করবেন। আর সে কারণেই মন্দির এবং সংলগ্ন এলাকা সাজানো হয়েছে নান্দনিক নৈসর্গিক সাজে।

তিনি আরও জানান, সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে শ্যামনগরের সোবাহান মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠের হেলিপ্যাডে বিমানবাহিনীর হেলিকপ্টারে করে অবতরণ করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পরে যশোরেশ্বরী কালীমন্দিরে প্রবেশ করে পূজা অর্চনায় যোগ দেবেন তিনি। ফলে গোটা ঈশ্বরীপুর ও মন্দিরসংলগ্ন এক থেকে দুই কিলোমিটার এলাকার মধ্যে কাউকে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না গোয়েন্দা সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী। নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হয়েছে ঈশ্বরীপুর-সহ পুরো শ্যামনগর উপজেলা রাস্তাঘাট।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে গত ২৩ মার্চ থেকে গোটা সাতক্ষীরায় নিশ্ছিদ্র বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করেছে আইনঙ্খলা বাহিনী। সাতক্ষীরা শহর থেকে শ্যামনগরের ঈশ্বরীপুর মন্দির পর্যন্ত রাস্তার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে চেকপোস্ট বসিয়ে যানবাহনে তল্লাশি চালাচ্ছে র‌্যাব-৬ এর টহল দল, পুলিশ ও সাদা পোশাকে থাকা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরা ক্যাম্পের উপ-সহকারী পরিচালক জিয়াউল ইসলাম জানান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সাতক্ষীরা শহর থেকে সুন্দরবন সংলগ্ন শ্যামনগর পর্যন্ত নিরাপত্তা বিশেষ ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। র‌্যাব-৬ সাতক্ষীরার এএসপি বজলুর রশীদের নেতৃত্বে রাস্তার গুরুপূর্ণ স্থানগুলোতে বিশেষ নিরাপত্তা চেকপোস্ট রোবাস্ট পেট্রোলিং-সহ ও বিশেষ নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে।

সাতক্ষীরা থেকে শ্যামনগর অভিমুখে ৪টি স্থানে বাস, ট্রাক,  প্রাইভেটকারসহ সব ধরনের যানবাহন দাঁড় করিয়ে তল্লাশি করা হচ্ছে। এবং সন্দেহভাজন সকল ব্যক্তিদের নজরে রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

পুলিশের পক্ষ থেকেও শ্যামনগর উপজেলাজুড়ে জোরদার করা হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও গোয়েন্দা নজরদারি।
এদিকে, বিশ্ববরেণ্য নেতা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বরণ করার অপেক্ষায় শ্যামনগরের মতুয়া ও হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ। উচ্ছসিত সাতক্ষীরাবাসীও।

সাতক্ষীরা শহর থেকে প্রায় ৫৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত শ্যামনগর উপজেলা। আর এই উপজেলা সদর থেকে তিন কিলোমিটার দূরে ঈশ্বরীপুরের অবস্থান। দীর্ঘদিন পরে হলেও মোদির আগমনে একটা আনন্দ-উচ্ছাস দেখা যাচ্ছে বাংলাদেশের অন্যতম স্মৃতিবহুল স্থান ঈশ্বরীপুর মানুষের মধ্যে। নরেন্দ্র মোদির আগমনে ঈশ্বরীপুরের অজপাড়া গাঁ-টি সেঁজেছে নতুন সাজে নতুন রঙ্গে ঢঙে। যেটি এক সময় রাজা-বাদশাদের পদচারণায় মুখরিত ছিল, সেটি এখন শুধুই স্মৃতি। এখানে ছিল যশোরের রাজা প্রতাপাদিত্যের রাজধানী, যার নাম ধুমঘাট।

প্রতাপাদিত্যের রাজধানীতে দীর্ঘকাল কোনও দেশবরেণ্য ও নামিদামি মানুষের পর্দাপণ ঘটেনি। হঠাৎ করেই দেশের গন্ডি পেরিয়ে প্রতিবেশি বন্ধু রাষ্ট্র ভারতের প্রধানমন্ত্রীর আগমনে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়িয়েছে ঈশ্বরীপুর-সহ ধুমঘাটের পুরো এলাকা।

সনাতনধর্মাবলম্বীদের কাছে ৫১ শক্তিপীঠের মধ্যে অন্যতম পবিত্র একটি শক্তিপীঠ ঈশ্বরীপুর যশোরেশ্বরী মা কালীমন্দির। আর মাত্র একদিন পরেই এই মন্দিরে পূজাঅর্চনায় যোগ দেবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

আরো পড়ুন সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

ফাইলসংকটাপন্ন অবস্থায় বরেণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক কাজী হায়াৎ আছেন লাইফ সাপোর্টে

করোনায় আক্রান্ত বরেণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক কাজী হায়াৎকে গত সোমবার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। একই হাসপাতালে তাঁর স্ত্রীকেও ভর্তি করানো হয়। এদিকে কাজী হায়াতের পুত্রবধূ রাইসাও তাঁর শ্বশুরের জন্য দোয়া চেয়েছেন দেশবাসীর কাছে।
করোনায় আক্রান্ত চিত্র পরিচালক কাজী হায়াৎ ও তাঁর স্ত্রী রোমিসা হায়াৎকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অবস্থার অবনতি হলে গত সোমবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ডাক্তারের সাথে কথা বলে জানা গেছে  কাজী হায়াতের অবস্থা অবনতির দিকে। ৮ মার্চ দুজনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর তাঁরা দুজন বাসাতে আইসোলেশন ছিলেন।

পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হলে গত সপ্তাহে তাঁদের হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ২ মার্চ তিনি করোনার টিকা নিয়েছেন। টিকা নেওয়ার পর থেকেই তার করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে। ৬ মার্চ থেকে জ্বর জ্বর বোধ করছেন তিনি।

করোনা প্রাদুর্ভাব শুরু থেকেই কাজী হায়াৎ খুব সতর্কতা অবলম্বন করতেন  সারাক্ষণ বাসাতেই থাকবো খুব বেশি প্রয়োজন হলে বাড়ির বাহিরে বের হতেন না  জানিয়েছেন, তার মেয়ে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। এ সময় কাজ থেকে বিরত ছিলেন এই নির্মাতা, প্রযোজক ও অভিনেতা। তখন থেকেই ঘরের বাইরে বের হতেন না তিনি। কোনো কাজে বের হলেও থাকত বাড়তি সতর্কতা। মার্চের প্রথম সপ্তাহে জ্বর নিয়ে করোনার নমুনা পরীক্ষা করিয়েছেন এই পরিচালক। নমুনা সংগ্রহের পর পরবর্তী ধাপে ফল আসে কাজী হায়াৎ ও তার স্ত্রী সহ করুন আক্রান্ত।

সম্প্রতি কাজী হায়াৎ অভিনয় করেছেন হিরো আলম প্রযোজিত ‘টোকাই’ ছবিতে। এ ছবিতে অভিনয়ের জন্য ফেব্রুয়ারির ২৬ তারিখ থেকে মার্চের ৬ তারিখ পর্যন্ত শুটিংয়ে অংশ নিয়েছিলেন। পরবর্তিতে তিনি বাসাতেই ছিলেন। ছবিতে কাজী হায়াৎকে দেখা যাবে নায়িকার বাবার চরিত্রে, যিনি টোকাই চরিত্রের অভিনেতা হিরো আলমকে তাঁর বাড়িতে আশ্রয় দেন।

আরো পড়ুনঃ

আপত্তিকর অবস্থায় ছবি তুলে ব্ল্যাকমেল করে, দুই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন অভিনেত্রী রুমানা

বিভিন্ন রকম প্রতারণার ফাঁদে জড়িয়ে এক সৌদি প্রবাসীর কাছ থেকে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগের মামলায় মডেল ও অভিনেত্রী রোমানা ইসলাম স্বর্ণাকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ।

গত বৃহস্পতিবার (১১ মার্চ) সন্ধ্যায় তাকে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের লালমাটিয়া এলাকা একটি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট বাসা থেকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের মোহাম্মদপুর জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) মৃত্যুঞ্জয় দে সজল। পুলিশ জানিয়েছেন রোমানা স্বর্ণা একাই নয় এরা একটি সঙ্ঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। সম্মিলিতভাবে এই চক্র প্রতারণা করে আসছে দীর্ঘদিন ধরে অন্তরালে।

প্রতারণার শিকার কামরুল হাসান জুয়েল দুই কোটির বেশি টাকা প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে ইতিমধ্যে গণোমাধ্যম ও পুলিশকে বিস্তারিত জানিয়েছে।

ভুক্তভোগী কামরুল হাসান জুয়েল বলেন, আমার ফুফাতো ভাইয়ের মাধ্যমকে তার সঙ্গে পরিচয় হয়েছিল। পরিচয় হওয়ার এক পর্যায়ে সে ফেসবুকে আমাকে  বন্ধু বানায় । সে আবেগীয় ভঙ্গিমায় অসহায়ত্ব প্রকাশ করে তখন তার এই অভিনয় আমি বুঝতে পারতাম না সরল মনে আমি তাকে বিশ্বাস করেছি। সে বলে আমার মা’কে নিয়ে আমি অসহায় অবস্থায় আছি। আমার একটা ছেলে আছে, লেখাপড়া করাতে পারিনা। নিয়মিত মিডিয়াতে কাজ হয় না। এক কাজ করো আমাকে তুমি একটা উবার কিনে দাও (প্রাইভেট গাড়ি), যেটা দিয়ে আমি সামরিক চলতে পারবো। আমি ১৮ লাখ টাকা দিয়ে উবার কিনে দেই। আমার সব মিলিয়ে সর্বমোট দুই কোটি টাকার মতো নিয়েছে।

তবে পুলিশ জানায় অভিনেত্রী রোমানা স্বর্ণা একটি প্রতারকচক্রের হয়ে কাজ করে আসছে দীর্ঘদিন। প্রথমে প্রেমর সম্পর্ক পরে হেনস্থার ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায় করে থাকে।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের তেজগাঁও জোনের উপ পুলিশ কমিশনার হারুন অর রশিদ বলেন, ‘ভুক্তভোগী জুয়েল যখন বিদেশ থেকে আসলো, তখন সে তার স্ত্রী মডেল, অভিনয় করে। তার বাড়িতে গেল। সেসময় এই প্রতারকচক্র করলো কি, তাকে আরো প্রতারণা করার জন্য উলঙ্গ করে ছবি তুললো। এরপর তাকে বললো তুমি যদি আরো টাকা না দাও তাহলে এই ছবি ফেসবুক ও ইন্টারনেটে ছেড়ে দিব। সেই ভয়ে ভুক্তভোগী আরো কিছু টাকা দিলেন।’

অর্থাৎ বাসায় নিয়ে বিবস্ত্র করে (জামা-কাপড় কাপড় বিহীন) ব্ল্যাকমেইল করে ফেঁসে গেলেন রোমানা স্বর্ণার। এমনটাই পুলিশ জানিয়েছেন।

তেজগাঁও জোনের এই পুলিশ কর্তা আরো জানান কামরুল হাসান জুয়েলের মতো প্রবাসী অনেকেই প্রেমের ফাঁদে পড়ে টাকা খোয়াচ্ছেন। একাধিক পুরুষের সাথে দীর্ঘদিন ধরে এরকম কাজ করে আসছিল রোমানা স্বর্ণা।

এ মামলার অন্য আসামিরা হলেন- আশরাফি ইসলাম শেইলী (৬০), নাহিদ হাসান রেমি (৩৬), আন্নাফি (২০), ফারহা আহম্মেদ (৩০) ও অজ্ঞাত এক যুবক (৩৭)।

সঠিক নিয়মে বিজ্ঞাপন দিন দ্রুত পণ্য বিক্রি করুন 

বিজ্ঞাপন দিন সঠিক নিয়ম (1)
ফাইল ছবি

কেন খবর অনলাইন?

সম্মানিত পাঠকদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, এখন থেকে নিয়মিতভাবে ডেইলি সিলেট 24 ডটকম তথ্যবহুল ও আলোচিত, পাঠক নন্দিত ওয়েব সংস্করণ dailysylhet24.com এ আকর্ষণীয় মূল্যে বিজ্ঞাপন প্রচার করা হচ্ছে।

‘ডেইলি সিলেট 24 ডটকম’ ওয়েবসাইটে দেয়া বিজ্ঞাপনের সাথে লিঙ্ক থাকবে বিজ্ঞাপনদাতা কোম্পানির নিজস্ব ওয়েবসাইটের।

তথ্য-প্রযুক্তির এ যুগে কোনো প্রতিষ্ঠান বা পণ্যের বিজ্ঞাপনের জন্য মানুষ এখন নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে ইন্টারনেটের উপর। তাই আপনার প্রতিষ্ঠান কেন পিছিয়ে থাকবে? আপনার প্রতিষ্ঠান কিংবা পণ্যের প্রসারে সাহায্য করবো আমরা। আমরা আপনাদের সাথে আছি। খুব স্বল্প মূল্যে আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপণ দেওয়ার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরা সাপ্তাহিক এবং মাসিক ভিত্তিতে বিজ্ঞাপণ গ্রহণ করি।

জোয়ার এসেছে ডিজিট্যাল প্রকাশনায়। এই জোয়ার আসার অনেক আগেই খবর অনলাইনের পথ চলা শুরু হয়েছে। খবরের গুণগত মান এবং বিশ্বাসযোগ্যতা মন জয় করেছে পাঠকের। মননশীল পাঠক খবর অনলাইনের সম্পদ। ফেসবুক বুস্ট এর চেয়েও দ্রুত ফল পাবেন। পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দেওয়ার মাধ্যমে মিনিটে লক্ষ লক্ষ পাঠকের কাছে চলে যায়। ফলে আপনার প্রোডাক্টের কদর রাতারাতি বেড়ে যায় ও বিক্রি দ্রুত বৃদ্ধি পায়। আমাদের এখানে বিজ্ঞাপন দিয়ে অনেকেই প্রতিষ্ঠিত।

কিন্তু প্রতিষ্ঠিত সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিতে যে পরিমাণ খরচ হবে, তার চেয়ে অনেক কম খরচে আপনি আপনার ‘প্রোডাক্ট’-এর তথ্য পৌঁছে দিতে পারবেন ক্রেতাদের কাছে।

উত্তরোত্তর বাড়ছে পাঠকের সংখ্যা
বিশ্বাসযোগ্যতা এবং খবরের গুণগত মান পাঠককে আকৃষ্ট করে। আর পাঁচটা প্রতিষ্ঠিত পত্রিকার মতোই ডিজিট্যাল মাধ্যমের পাঠক প্রতি দিন নজর রাখেন খবর অনলাইনে। ফলে রোজই নতুন পাঠকের সংখ্যা যেমন বাড়ছে তেমনি বাড়ছে ফিরে ফিরে আসা পাঠকের সংখ্যাও। ফলে আপনার দেওয়া বিজ্ঞাপন থেকে ‘রিটার্ন’ পাওয়ার সম্ভাবনা বাড়ছে।

  1. কম টাকায় বেশি দিন বিজ্ঞাপন দেয়া যাবে।
  2. কম খরচে অধিক প্রচার ও প্রসারের উদ্দেশে।
  3.  আপনার মনমতো সাইজের অ্যাড দিতে পারবেন।
  4.  এক জায়গায় চাইলে একসাথে একাধিক বিজ্ঞাপন দেয়া যাবে।
  5.  আপনি চাইলে আপনার বিজ্ঞাপন সংশ্লিষ্ট ডিজাইন, ছবি, লেখা, ফ্লাশ ব্যানার আমাদের থেকে বানিয়ে নিতে পারেন। তাই দেরী না করে আমাদের সাথে আজই যোগাযোগ করুন।

সার্চ ইঞ্জিন
ওয়েবের জগতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে সার্চ ইঞ্জিনের। তথ্যের সমুদ্রে যাতে সহজে খুঁজে পাওয়া যায়, তার জন্য সৃজনশীল ভাবে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO) করে খবর অনলাইন। তাই আপনার বিজ্ঞাপিত পণ্যের তথ্য খুব সহজেই খুঁজে পাওয়া যাবে সার্চ ইঞ্জিনে।

কোন ধরনের বিজ্ঞাপন দেওয়া যেতে পারে
ব্যানার বা প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনি বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। কোন ধরনের বিজ্ঞাপন আপনার পণ্যের জন্য সঠিক হবে তা আমাদের প্রতিনিধি আপনার সঙ্গে কথা বলে ঠিক করবেন। এর জন্য আমাদের প্রতিনিধির সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

খবর অনলাইন যেমন গুরুত্ব দেয় পাঠককে, সমান গুরুত্ব দেয় বিজ্ঞাপন দাতাকে।

  • যোগাযোগ করুন
  • মোঃ শিমুল রানা
  • মোবাইল- ০১৭১৯৪২৬৫৬০
  • ইমেল করুন
  • E-mail : dailysylhet24.com@gmail

পুলিশের সাথে মুসল্লিদের সংঘর্ষ ভিডিওটি লাল চিহ্নিত ক্লিক বাটন ক্লিক করুন

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে